ঢাকা, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

রাস্তা ঝাড়–দিতে নিষেধ করায় বরিশালে দুই সহোদরকে মারধর, হাসপাতালে ভর্তি


জেলার খবর

প্রকাশিত: ১০:৫২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২১

অনলাইন ডেস্কঃ ইফতারি বিক্রির সময় রাস্তা ঝাড়–দিতে নিষেধ করায় মো. নুর সাদ আকন মিরাজ ও রিয়াজ নামে দুই সহোদরকে মারধরের ঘটনা ঘটে। বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় বরিশাল নগরীর চরের বাড়ি ত্রিশ গোডাউন মসজিদের সামনে ঘটনাটি ঘটে।

আহত মিরাজ নগরীর ত্রিশ গোডাউন রোড চরের বাড়ি এলাকার মো. মনজুরুল করিম আকনের ছেলে। মিরাজ নগরীর এ্যাংকর সিমেন্ট কোম্পানিতে চাকুরী করেন। রাস্তার পাশে বসে এক ব্যক্তি ইফতারি বিক্রির সময় সিটি করপোরেশনের এক পরিচ্ছন্ন কর্মী ঝাড়–দেয়।

তখন মিরাজ ঐ পরিচ্ছন্ন কর্মীকে বলে ভাই এখন ইফতারির সময় একটু পড়ে ঝাড়– দেন না হলে সব ধুলোবালি ইফতারিতে যায়। তখন ঐ পরিচ্ছন্ন কর্মী ঝাড়– দেয়া বন্ধ করে চলে যায়, কিন্তু পাশে থাকা দোকানদার হাবিব হাওলাদারের ছেলে মনির (৩৪) এসে মিরাজকে মারধর করা শুরু করে, তাকে বলে ইফতারিতে ধুলোবালি গেলে তোর কি, তোর এতো দরদ কেন, এখন আমার দোকানের সামনে ঝাড়ু দেবে তুই এখান থেকে চলে যা, না হলে তোর হাত পা ভেংগে ফেলার হুমকি দিয়ে এলোপাথরি কিল-ঘুসি মারতে থাকে এক পর্যায়ে মিরাজের মাথায় ও চোখে ঘুষি লাগায় মাটিত লুটিয়ে পরে যায়।

এসময় মিরাজের বড় ভাই রিয়াজ এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় তাকেও এলোপাথারি মারধর শুরু করে দোকানি মনির সহ তার ফুফাতো ভাই শহিদ, জনি, বেল্লাল সহ কয়েকজন। পরবর্তিতে স্থানীয়রা মিরাজ ও রিয়াজকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। মিরাজের পরিবার থেকে জানা যায় তারা মামলা করার জন্য থানায় গিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top