ঢাকা, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কলাপাড়ায় কুলখানি অনুষ্ঠানে হামলা: আহত-২০

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় কুলখানি অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে চারজন গুরুতর আহত হয়েছে। এরা হলো রাজিব হাওলাদার, মোসা.আসমা, গোল তাহেরা, মো.জাফর গাজী। শনিবার বিকেলে উপজেলার চম্পাপুর ইউনিয়নের দেবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তবে কুলখানি অনুষ্ঠান পন্ড হয়ে যায় বলে জানিয়ছেন স্থানীয়রা। চম্পাপুর ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য হালিমা বেগম জানান, দেবপুর গ্রামের লাল মিয়া গাজীর স্ত্রী মৃত মনোয়ারা বেগমের নামে কুলখানির অনুষ্ঠান চলছিল। ওই অনুষ্ঠানে দেবপুর গ্রামের রিপন মৃধার মেয়ে জান্নাতুল এবং মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের রশিদ খাঁ’র ছেলে ইমরান উপস্থিত ছিল। এদের দু’জনের আগে থেকেই প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কুলখানি চলমান অবস্থায় ইমরান জান্নাতুলকে নিয়ে পাশের মরিচবুনিয়া গ্রামে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন প্রেমিক-প্রেমিকাকে আটক করে। এ খবর শুনে মেয়ের পিতা দলবল নিয়ে হামলা চালায়। এসময় কুলখানিতে আসা সাধারন মানুষ না খেয়ে চলে যায়। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি মিমাংসার জন্য এগিয়ে আসলেও কেউ কারো কথা না শুনে বরং আরো বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। এক ঘন্টা পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছৈ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে। জাফর গাজী বলেন, তার মায়ের কুলখানী অনুষ্ঠানে স্বজনরা বাড়িতে আসে। সব কিছু ঠিকভাবে চলছিল। কোন কিছু বোঝার আগেই এ হামলা ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনায় অনুষ্ঠান পন্ড হয়ে যায়। কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো.আসাদুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
Top