ঢাকা, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চরফ্যাশনে ইউপি নির্বাচনে ভোট দিবেন ৩ রোহিঙ্গা!

মিয়ানমারের ৩ রোহিঙ্গাকে ভোটার হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করেছে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাচন অফিস। শনিবার (২০ মার্চ) তাদের ভোটার হিসেবে অর্ন্তভুক্ত করা হয়। এরা উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন থেকে জন্মসনদ ও নাগরিক সনদ নিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) নিবন্ধিত হয়েছেন। এদের মধ্যে মুজিবনগর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মো. সজিব (১৮), মাদ্রাজের ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে মো. রাসেল (২২) ও নজরুলনগরের ৬ নম্বর ওয়ার্ড থেকে জুয়েল (২৫) নামের রোহিঙ্গা যুবক জন্মসনদ ও নাগরিক সনদ নিয়ে এনআইডি সংগ্রহ করেছেন। নিজেদের প্রকৃত পরিচয় গোপন রেখে এরা দালাল চক্রের মাধ্যমে ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে স্থানীয় ভোটার তালিকায় নিজেদের নাম অর্ন্তভুক্ত করেছেন বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে। তাদের এনআইডি নম্বর ৪৬৫৯৯৫১১৪১, ৪২০৩১৪৭০৪৮ ও ১৫০৯৬৬৯৯১৫। জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য সংগ্রহকারী মাদ্রাজ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড হামিদপুর এলাকার শাহ মোহাম্মদ আবদুল মতিন বলেন, রাসেল নামের যে রোহিঙ্গা যুবকের কথা বলা হচ্ছে, তার বিষয়ে আমার কিছু মনে নেই। ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও শনাক্তকারী সুপারভাইজার জাকির বলেন, নাম ও ঠিকানা সঠিক রয়েছে। তবে জন্ম নিবন্ধনের স্বাক্ষর আমার না। ‘কীভাবে তারা জন্ম নিবন্ধনের কাগজ নিল’ তা আমার জানা নেই। মুজিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াদুদ মিয়া বলেন, রোহিঙ্গা ভোটার সজিব নামের কেউ মুজিবনগর ১ নম্বর ওয়ার্ডে নেই। আমি কখনো তাকে দেখিনি। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে ৩ রোহিঙ্গা ভোটারকে শনাক্ত করা হয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষে এ ব্যাপারে ববস্থা নেওয়া হবে।
Top